সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০২:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দৈনিক বাংলাদেশের দিনকাল পত্রিকার এডমিন অফিসার আরাফাত হোসেনের ১৯তম জন্মবার্ষিকী আবাসিক এলাকায় অবৈধ জুতা তৈরীর কারখানা অতিষ্ঠ জনজীবন মহম্মদপুরে নহাটা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে দুপুরে খাবার বিতরণ কুষ্টিয়ায় সময়ের আলো পত্রিকার ৫ ম প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালন ধামইরহাটে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আশুলিয়ায় ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, আটক ৪ ধামইরহাটে বাংলাদেশ বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত মোল্লাহাটে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত মাগুরায় ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক-১

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী বলেছেন গুজব ও অপতথ্যমুক্ত গণমাধ্যম চাই

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১৩৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

 

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেছেন, আমরা গুজব ও অপতথ্যমুক্ত গণমাধ্যম চাই। যেখানে শুধু তথ্যের অবাধ প্রবাহ থাকবে। যেখানে শুধু তথ্যের অবাধ প্রবাহ থাকবে। সরকার বা অথরিটিকে অবশ্যই প্রশ্ন করবে এবং সেই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সুযোগ থাকতে হবে। শুধু প্রশ্ন না, সমালোচনারও সুযোগ থাকতে হবে আমরা এটা চাই। তবে সেই সমালোচনা যেন সঠিক তথ্যের ওপর হয়, সেই বিষয়ে আমরা জোর দিতে চাই।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) সচিবালয়ে টেলিভিশন চ্যানেল মালিকদের সংগঠন অ্যাটকো নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রথম যে কেবিনেট মিটিং হয়েছে সেখানে প্রধানমন্ত্রী আমাদের একটা কথা বলেছেন এবং সেটি খুবই প্রবিধান যোগ্য। উনি বলেছেন, অনেক ক্ষেত্রে সমালোচনা হবে, আমরা যারা বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিয়েছি। কিছু কিছু সমালোচনা হয় সঠিক তথ্যের ওপর ভিত্তি করে, সেখান থেকে আমাদের যে ধরনের ব্যর্থতা বা বিচ্যুতি আছে সেটা জেনে সেগুলো শুধরে নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী ক্রিটিসিজমের বিপক্ষে না। কিন্তু উনি চান ক্রিটিসিজম হোক সঠিক তথ্যের ওপর ভিত্তি করে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, অনেক সময় মিথ্যা তথ্যের চেয়ে অর্ধসত্য তথ্য অনেক বিপদজনক হয়। পূর্ণাঙ্গ চিত্র তুলে না ধরে পারশিয়াল একটা ইনফরমেশনের ওপর ভিত্তি করলে অডিয়েন্স কিন্তু বিভ্রান্ত হয়। গণমাধ্যম সরকারকে জবাবদিহিতার মধ্যে আনবে এটাই কাম্য এবং আমরা জবাব দেব। একই সঙ্গে গণমাধ্যম বা অন্য কিছুকে ব্যবহার করে যারা অপতথ্য ও মিথ্যা তথ্য ছড়ানোর অপচেষ্টা করে সবাই মিলে আমরা তাদের একটা সলিট স্ট্রাকচারের মাধ্যমে জবাবদিহিতায় আনতে পারি। এ বিষয়ে আপনাদের সবার সহযোগিতা চাই।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র এবং অগ্রগতির স্বার্থে তথ্যের অবাধ প্রবাহ, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা দেওয়া খুবই জরুরি। ঠিক একইভাবে ক্ষতিকর অপতথ্য এবং তার বিস্তার রোধ করাও জরুরি। কারণ অপতথ্য মানুষের কোনো কল্যাণে আসে না। কোনো গুজব বা অর্ধ সত্য তথ্য গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের কোনো কল্যাণে আসে না। সরকার, রাজনীতির কোনো কিছুর কল্যাণে আসে না। সেক্ষেত্রে আমরা সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে কীভাবে গুজব রোধ করতে পারি এ রকম চেষ্টা করা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:২২ অপরাহ্ণ
  • ১৮:০৫ অপরাহ্ণ
  • ১৯:১৮ অপরাহ্ণ
  • ৬:২০ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102